HSC (BM) (2nd Year) 14th Week Assignment Solution 2021 এইচএসসি (বিএম) এসাইনমেন্ট ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা-২

The organization structure and its class division will have to be analyzed HSC (BM) Assignment 2021 Answer / Solution Business Organization and Management-2 (14th Week) Assignment-9 |  HSC (BM) (2nd Year) 14th Week Assignment Solution / Post Business Organization and Management-2 (Assignment 9) সংগঠন কাঠামো ও এর শ্রেণী বিভাগ বিশ্লেষণ করতে হবে | এইচএসসি (বিএম) এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর/সমাধান ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা-২ (১৪তম সপ্তাহ) এসাইনমেন্ট -৯ | ২০২১ সালের এইচএসসি (বিএম) (২য় বর্ষ) ১৪তম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা-২ (এসাইনমেন্ট ৯)

সংগঠন কাঠামো ও এর শ্রেণী বিভাগ বিশ্লেষণ করতে হবে
১ নং প্রশ্নের উত্তর

HSC (BM) (2nd Year) 14th Week Assignment Solution 2021 এইচএসসি (বিএম) এসাইনমেন্ট ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা-২

সংগঠন কাঠামো

অভিপ্রেত উদ্দেশ্য অর্জনের নিমিত্তে কারবার প্রতিষ্ঠানে নিযুক্ত কর্মকর্তা ও কর্মীদের সম্মিলিতভাবে কাজ করার জন্য যে কাঠামো রচনা করা হয় , তাকে সংগঠন কাঠামো বলা হয় । সংগঠন কাঠামো একপ্রকার ব্যবস্থা বা হাতিয়ার।

একটি সংগঠন কাঠামোতে সংগঠনের সদস্যগণকে কোথায় কার ওপর কর্তৃত্ব করবে অর্থাৎ কর্মীদের কর্তৃত্ব রেখা সংগঠন কাঠামোতে পরিষ্কারভাবে ফুটে ওঠে । এতে ঐকটা সাংগঠনিক অবয়ব সৃষ্টি হবে । ফলে প্রতিষ্ঠানের সদস্যগণ সংঘবদ্ধভাবে সাধারণ উদ্দেশ্য বা লক্ষ্য অর্জনের নিমিত্তে যৌথভাবে কাজ করার সুযোগ লাভ করবে । সংগঠন কাঠামো পরিবর্তনশীল । পরিবেশ বা অবস্থার পরিবর্তনের সাথে সাথে এর সংগঠন কাঠামোতেও পরিবর্তন সূচিত হয় ।

অবশেষে বলা যায় যে , কোন প্রতিষ্ঠান সাংগঠনিক কাঠামোকে চিত্রের সাহায্যে বা লিখিত তালিকা আকারে সংগঠনের বিভিন্ন বিভাগ ও উপবিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারীর অবস্থানিক সম্পর্ক দেখানো হলে তখন তাকে সংগঠন কাঠামো বলা হয়।

২ নং প্রশ্নের উত্তর

সংগঠন প্রক্রিয়া হল এমন একটি প্রক্রিয়া , যার দ্বারা প্রতিষ্ঠান অভিষ্ট লক্ষ্য অর্জনের জন্য প্রয়োজনীয় উপায় – উপকরণাদি সুসংগঠিত করা হয় , কার্যাদিকে বিভিন্ন শ্রেণীতে বিভক্ত করে সেগুলো সম্পাদনের নিমিত্তে দায়িত্ব কর্তৃত্ব গ্রহণ করা হয় এবং কার্যাদির মধ্যে সমন্বয় সাধন করা হয়।

সুনির্দিষ্ট নিয়ম কানুন ও পদ্ধতির উপর নির্ভর করে সংগঠন কাঠামো গড়ে ওঠে । সংগঠন কাঠামো চার প্রকার নিম্নে তা তুলে ধরা হলো :

(i) সরলরৈখিক সংগঠন : প্রতিষ্ঠানের সরলরেখার আকারে অবস্থিত পদসমূহকে ক্ষমতার অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পরস্পর সােিজয় যে কাঠামো তৈরি হয় তাকে সরলরৈখিক সংগঠন বলা হয়।

(ii) উপদেষ্টা সংগঠন : সরলরৈখিক নির্বাহীদের পাশাপাশি বিশেষজ্ঞ কর্মী বা পদস্থ কর্মী সহযোগে যে নতুন ধরনের সংগঠন কাঠামো গড়ে তোলে , তাকে উপদেষ্টা সংগঠন বলা হয় ।

(iii) কার্যভিত্তিক সংগঠন : কাজ বিভাজনের মাধ্যমে সামগ্রিক কাজ সম্পাদন কে কার্যভিত্তিক সংগঠন বলা হয় ।

(IV) কমিটি সংগঠন : কমিটির হল কতিপয় ব্যক্তির একটি দল , যারা কিছু দায়িত্ব পালনে অঙ্গীকারবদ্ধ । প্রাতিষ্ঠানিক লক্ষ্য অর্জনে অনেক সময় কোনো বিশেষ কাজ সম্পাদনের জন্য কমিটি গঠিত হয়।

৩ নং প্রশ্নের উত্তর

“সাংগঠনিক কাঠামো প্রণয়নের বিবেচ্য বিষয়”

অভিপ্রেত ও উদ্দেশ্য অর্জনের নিমিত্তে কারবার প্রতিষ্ঠানে নিযুক্ত কর্মকর্তা ও কর্মীদের সম্মিলিতভাবে কাজ করার জন্য যে কাঠামো রচনা করা হয় , তাকে সাংগঠনিক কাঠামো বলা হয় । প্রতিষ্ঠানের আকার – আয়তন প্রভৃতি বিবেচনা করে সংগঠন কাঠামো রচনা করতে হয় । তবে একটা সার্থক সাংগঠনিক কাঠামো প্রণয়নে নিম্ন বর্ণিত বিষয়গুলো বিবেচনা করা যেতে পারে।

i ) উদ্দেশ্য ও নীতি নির্ধারণ : প্রতিষ্ঠানের সংগঠন কাঠামো প্রবর্তনের পূর্বে এর উদ্দেশ্য ও নীতি নির্ধারণ করতে হয় । এভাবে প্রতিষ্ঠিত নৈতিক ভিত্তি হিসেবে গণ্য করে প্রতিষ্ঠান প্রশাসনিক কার্য পরিচালিত হতে থাকে।

ii ) দক্ষতা: সংগঠনকে ন্যূনতম সামর্থ্য এবং সর্বনিম্ন ব্যয়ে পরিকল্পনার লক্ষ্য সমূহ অর্জন করাকে দক্ষতা নীতি বলা হয় । দক্ষতা অর্জন করাও সংগঠনের অন্যতম উদ্দেশ্য ।

iii ) দায়িত্ব কর্তৃত্বের সমতা : সুষ্ঠুভাবে সংগঠনের কার্যনির্বাহের জন্য কোন একজনকে দায়িত্ব প্রদান করলে তাকে অবশ্যই সমপরিমাণ কর্তৃত্ব অর্পণ করতে হবে ।

(iv) জোড়া ম‍ই শিকল নীতি : সংগঠন কাঠামোতে কর্তৃত্ব রেখা স্পষ্ট রূপে বর্ণনা করতে হবে । অর্থাৎ সংগঠনের কে কোথায় অবস্থান করেছেন এবং কোন কর্মী কার নিকট জবাবদিহি করবেন তা যেন পরিষ্কার ভাবে ফুটে ওঠে এরূপ ব্যবস্থা থাকতে হবে । এটাই জোড়া মই – শিকল নীতি ।

v ) শ্রমবিভাগ : কর্মীদের দক্ষতা অর্জনের সুবিধার জন্য কাজের প্রকৃতি বিবেচনা করে বিভিন্ন বিভাগ সৃষ্টি করতে হয় । এতে কর্মীরা পারদর্শী ও বিশেষায়িত জ্ঞানের অধিকারী হতে পারবে ।

vi) সরলতা : সংগঠন কাঠামো সহজ – সরল হতে হবে , যাতে কর্মীদের অবস্থান এবং কর্তৃত্বের রেখা সহজ ভাবে বোঝা যায় ।

vi ) ভারসাম্য: সংগঠনের বিভিন্ন বিভাগ ও উপবিভাগের মধ্যে কর্তৃত্বের ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে ।

vili ) ব্যয় সংকোচন : সংগঠন কাঠামোতে ব্যয় সংকোচনের ব্যবস্থা থাকতে হবে ।

পরিশেষে বলা যায় যে , সংগঠন কাঠামো রচনায় উপরোক্ত বিষয়গুলো বিবেচনা করতে হবে । তাহলেই প্রতিষ্ঠানের সফলতা অর্জিত হবে ।

৪ নং প্রশ্নের উত্তর

সরলরৈখিক সংগঠনের সুবিধা

যে সংগঠনের আদেশ – নিষেধ উপর থেকে ক্রমান্বয়ে নিচের দিকে আসে তাকে সরলরৈখিক সংগঠন বলা হয় ।

সরলরৈখিক সংগঠন এর বেশ কিছু সুবিধা রয়েছে তা নিম্নে তুলে ধরা হলো :

i ) সরলতা : অন্য যে কোনো সংগঠনের চেয়ে সরলরৈখিক সংগঠন পদ্ধতি অত্যন্ত সহজ ও সরল । এতে কর্তৃত্ব ও দায়িত্বের সুনির্দিষ্ট গতি রেখা সৃষ্টি হয় । ফলে প্রতিটি কর্মী এ ধরনের সংগঠন সহজে বুঝতে পারে।

ii ) কর্তৃত্ব ও দায়িত্বের সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা : এ ধরনের সংগঠনের কর্তৃত্ব ও দায়িত্বের সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা দ্বারা কার্য পরিষর নির্দিষ্ট করা হয়ে থাকে । ফলে কর্তৃত্ব হস্তক্ষেপ বা দায়িত্ব পালনে অন্যকে দোষারোপ করার অবকাশ থাকে না ।

iii ) দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণ : উৰ্দ্ধতন নির্বাহীগণ সিদ্ধান্ত গ্রহণের পূর্ণ ক্ষমতার অধিকারী হন । উৰ্দ্ধতন নির্বাহীগণ যেকোনো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন ।

IV ) প্রাতিষ্ঠানিক শৃঙ্খলা বজায় রাখা : কর্তৃত্ব ও দায়িত্বের সুনির্দিষ্ট গতিরেখা থাকায় সরলরৈখিক সংগঠনে প্রাতিষ্ঠানিক শৃঙ্খলা বজায় রাখা যায়।

VI) পদন্নতির পরিষ্কার রূপরেখা: সরলরৈখিক সংগঠনে কর্মীদের পদোন্নতির পরিষ্কার রূপরেখা প্রদান করা হয় । ফলে পদন্নতির উদ্যোগ সম্পর্কে অধীনস্থ অবগত থাকেন এবং আন্তরিক ও আগ্রহের সাথে কার্য সম্পাদন করেন ।

VI) কর্মী প্রেষণা : এই সংগঠনের পদন্নতির সিঁড়ির ধাপ সম্পর্কে কর্মীরা অবগত থাকে । তাই পদন্নতির আশায় নিষ্ঠা ও আগ্রহের সাথে তারা কার্যসম্পাদনের মনোনিবেশ করে ।

VII) নিয়ন্ত্রণ এর সুবিধা : সরলরৈখিক সংগঠন এ আদেশ ও নির্দেশ প্রদানের সুনির্দিষ্ট প্রতিরক্ষা এবং কর্তৃত্ব ও দায়িত্ব জবাবদিহিতার ব্যবস্থা থাকায় কার্যাদির নিয়ন্ত্রণ সহজ হয় ।

VIII) নির্বাহী প্রতিভার উন্নয়ন : এটি নির্বাহী কর্মকর্তার প্রতিভার উন্নয়নে সাহায্য করে । অধীনস্থ কর্মীদের প্রশিক্ষণ দান করতে গিয়ে নির্বাহী কর্মকর্তাদের প্রতিভার বিকাশ ঘটে । যা প্রতিষ্ঠান উন্নয়নে ব্যাপক ভাবে সহায়ক হয় ।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে EducationsinBD.com এর ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channelজাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল নোটিশ দেখুন এখানে একসাথেNational University Notice Board অনার্স /মার্স্টাস/ ডিগ্রি পরীক্ষার প্রিমিয়াম সাজেশন পেতে ফেসবুক পেজে মেসেজ দিন। https://www.facebook.com/PremiumSuggestionআমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন Facebook Group

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.