শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের ১ বছর পূর্ণ হলো আজ

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের ১ বছর পূর্ণ হলো আজ (১৬ মার্চ)। ২০২০ সালের আজকের এই দিনে করোনাভাইরাসের কারণে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। প্রথম দফায় ৩১ মার্চ ২০২০ পর্যন্ত ছুটি বাড়ানো হলেও কয়েক দফায় এ ছুটি বাড়িয়ে ২০২১ সালের ২৯ মার্চ পর্যন্ত করা হয়েছে। যার ফলে দীর্ঘ ১ বছর ধরে বন্ধ রয়েছে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

আরো পড়ুন- শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে নতুন যে সিদ্ধান্ত জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

বাংলাদেশে ২০২০ সালের ৮ মার্চ প্রথম করোনা ভাইরাসের রোগী শনাক্ত হলেও প্রথম মৃত্যুর খবর আসে ১৮ মার্চ। দিন দিন করোনা রোগী শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ায় নড়েচড়ে বসে সরকার। ভাইরাসটি যেন ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সব সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

করোনার পরিস্থিতির মধ্যেই ২০২০ সালের ৩১ মে থেকে দেশের সরকারি-বেসরকারি অফিস খুলে দেওয়া হয়েছে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব হয়নি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ২০২১ সালের ২৯ মার্চ পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

বিকাশ এপ ডাউনলোড করে লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস, সাথে ৫০ টাকা বোনাস একদম ফ্রী - Bkash App Download Link শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে EducationsinBD এর চ্যানেলের সাথেই থাকুন। আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস মহামারি কারণে ২০২০ সালে নিয়মিত শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ রাখার পাশাপাশি অনুষ্ঠিত হয়নি পাবলিক পরীক্ষাগুলো। করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে গতবছরের পঞ্চম ও অষ্টমের সমাপনী পরীক্ষা এবং প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের বার্ষিক পরীক্ষা নেওয়া যায়নি। আর অষ্টমের সমাপনী এবং এসএসসি ও সমমানের ফলফলের ভিত্তিতে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিকে করোনা মহামারির কারণে প্রায় এক বছর ধরে বন্ধ থাকা স্কুল-কলেজগুলো ৩০শে মার্চ থেকে খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ, যদিও শুরু থেকেই প্রতিদিন ক্লাসে যেতে হবেনা শিক্ষার্থীদের। ২৭ ফেব্রুয়ারিতে ঢাকায় সচিবালয়ে এক আন্ত:মন্ত্রণালয় বৈঠকের পর শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি জানান দেশের সব প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ত্রিশে মার্চ খুলে দেয়া হবে।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, গত এক বছর ধরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। ইতিমধ্যে শিক্ষার্থীদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। সেই ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে এ বছর ছুটি কিছুটা কমানো হবে। তবে সব শিক্ষার্থীরা প্রতিদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাবেনা। আর প্রাক-প্রাথমিক সম্পর্কে পরে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

স্কুল-কলেজ ৩০ মার্চ খোলার কথা থাকলেও এখনই খুলছে না বিশ্ববিদ্যালয়। গত ২২ ফেব্রুয়ারিতে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, আগামী ২৪ মে থেকে বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো ১৭ মে থেকে খুলে দেওয়া হবে।

আরো পড়ুন- শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার তারিখ পরিবর্তন হতে পারে: শিক্ষামন্ত্রী

এদিকে গত ১২ মার্চ শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, করোনার উর্ধগতিটা অব্যাহত থাকে তাহলে অবশ্যই পর্যবেক্ষণের ভিত্তিতে এবং জাতীয় পরামর্শক কমিটির সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে সরকার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ৩০ মার্চ খুলবে না পরিবর্তন হবে। শুক্রবার (১২ মার্চ) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

ডা দীপু মনি বলেন, আমরা একদম বরাবরেই মত গত এক বছর যেমন করেছি এখনো প্রতিদিন পর্যবেক্ষণ করছি এবং আমাদের শিক্ষার্থীদের শিক্ষকদের কর্মচারীদের এবং সকল অভিভাবকদের সকলেরই স্বাস্থ্য ঝুঁকি এবং সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়টি আমাদের সব চাইতে বেশি বিবেচনায় নিয়েই আমরা সিদ্ধান্ত নেব। কাজেই আমরা পর্যবেক্ষণ করছি।

Educations in BD ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel Grameenphone এর মাইজিপি এপ ডাউনলোড করে জিতে নিন ৩ জিবি ফ্রি ইন্টারনেট এবং ফ্রি পয়েন্ট MyGP App Download Now

Leave a Reply