স্থগিত সব সরকারি চাকরির পরীক্ষা নভেম্বরে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন

স্থগিত সব সরকারি চাকরির পরীক্ষা নভেম্বরে হবে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, স্থগিত থাকা সব সরকারি চাকরির পরীক্ষা নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে। আজ মঙ্গলবার একটি বেসরকারি টেলিভিশনকে এ কথা জানান তিনি। এমনকি নভেম্বরে সরকারি চাকরি পরীক্ষা শেষ করার কথাও জানান জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী। এছাড়া বয়সের বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে পরামর্শ করার কথাও জানান প্রতিমন্ত্রী।

দেশে গত ৮ মার্চ প্রথম মহামারি করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। প্রাণঘাতী ভাইরাসের সংক্রমন রোধে মার্চ, এপ্রিল, মে ও জুন এই চার মাসে সরকারি চাকরির কোনো নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি।

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে কারণে আটকে গেছে তিনটি বিসিএস ও নন ক্যাডার চাকরির পরীক্ষাসহ পাবলিক সার্ভিস কমিশন-পিএসসির ১৩টি পরীক্ষা। এছাড়া পিছিয়ে গেছে খাদ্য অধিদপ্তরের নিয়োগ পরীক্ষা, ব্যান্সডকের লিখিত পরীক্ষা। তুলা উন্নয়ন বোর্ডের পরীক্ষা।

এমনকি সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, জনতা ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষাসহ অনেকগুলো সরকারি চাকরি পরীক্ষা প্রক্রিয়া আপাতত থেমে আছে।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে EducationsinBD এর চ্যানেলের সাথেই থাকুন। আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel নতুন বিকাশ অ্যাপ থেকে নিজের একাউন্ট খুলুন মিনিটেই, শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে। কোথাও যেতে হবে না! আর অ্যাপ থেকে একাউন্ট খুলে প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস!সাথে আছে আরো অ্যাপ অফার: - প্রথম বার ২৫ টাকা রিচার্জে ৫০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস .সর্বমোট ১৫০ টাকা বোনাস পাবেন একজন বিকাশ গ্রাহক। এছাড়া যারা একাউন্ট খুলেছেন তারাও বিকাশ এপ ডাউনলোড করে প্রথম প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস! Bkash App Download Link

স্থগিত সব সরকারি চাকরির পরীক্ষা নভেম্বরে: জনপ্রশাসন  প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন

তবে পাবলিক সার্ভিস কমিশন-পিএসসি’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক জানিয়েছেন, ৩৮তম বিসিএস এর চূড়ান্ত ফলাফল দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রকাশ করা হবে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু না হলে কোনো নিয়োগ পরীক্ষা নেয়া যাবে না।

করোনার কারণে থমকে আছে সরকারি চাকরির সকল নিয়োগ পরীক্ষা। বিশেষ করে ৩৮, ৪০ ও ৪১তম বিসিএসসহ পিএসসির অধীনে ১৩টি পরীক্ষা স্থগিত আছে। অন্যদিকে অর্নাস ও মাস্টার্স শেষ করেও নতুন বিজ্ঞপ্তি না থাকায় আবেদন করতে পারছেন না চাকরি প্রত্যাশীরা।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, স্থগিত থাকা সব সরকারি চাকরির পরীক্ষা নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে।

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স-মাস্টার্স শেষ করে সরকারি চাকরির নিয়োগ পরীক্ষার অপেক্ষায় শিক্ষার্থীরা। আর করোনাকালে ঢাকায় থেকে প্রস্তুতি নেয়া কঠিন হয়ে যাচ্ছে, বলছেন অনার্স পাস করা অনেক শিক্ষার্থী।

করোনার প্রকোপে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের বড় একটি অংশ গ্রামে অবস্থান করছেন। সেখানে ইন্টারনেট সুবিধাসহ অনেক সীমাবদ্ধতার কথা জানান শিক্ষার্থীরা। নির্ধারিত সময়ে পরীক্ষা না হওয়া ও নতুন করে বিজ্ঞপ্তি না থাকায় বয়সের দিকটি নিয়েও শঙ্কার মধ্যে রয়েছেন চাকরি প্রত্যাশীরা।

করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে আটকে গেছে তিনটি বিসিএস ও নন ক্যাডার চাকরির পরীক্ষাসহ পাবলিক সার্ভিস কমিশন-পিএসসির ১৩টি পরীক্ষা। পিছিয়ে গেছে খাদ্য অধিদপ্তরের নিয়োগ পরীক্ষা, ব্যান্সডকের লিখিত পরীক্ষা। তুলা উন্নয়ন বোর্ডের পরীক্ষা। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, জনতা ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষাসহ অনেকগুলো সরকারি চাকরি পরীক্ষা প্রক্রিয়া আপাতত থেমে আছে।

ইবিডি/ ডিবিসি নিউজ

আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel

Leave a Reply