২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন। HSC exam routine 2019

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড এর ২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন আংশিক পরিবর্তন হয়েছে। শিক্ষাবোর্ড এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে সংশোধিত রুটিনটি প্রকাশ হয়।

২০১৭-২০১৮ শিক্ষা বর্ষের ২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার সংশোধিত সময়সূচী প্রকাশ হয়েছে।  এডুকেশন্স ইন বিডির ওয়েবসাইট এ রুটিনের বিস্তারিত তুলে ধরা হলো।

এডুকেশন্স ইন বিডির পাঠকদের জন্য এখানে ২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিনটি হুবহু দেয়া হলো। সেই সাথে আসল রুটিনটি কোন ঝামেলা ছাড়া ডাউনলোড করার লিংকও দেওয়া হলো।

২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার প্রকাশিত সময়সূচির আংশিক পরিবর্তন প্রসঙ্গে উপযুক্ত বিষয়ের প্রেক্ষিতে জানানাে যাচ্ছে, ২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় নিম্নবর্ণিত বিষয়ের সময়সূচি পরিবর্তন করা হলাে।

আরো দেখুন-

কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০১৯

মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের এইচএসসি আলিম পরীক্ষার রুটিন ২০১৯

আপডেট এইচএসসি ২০১৯ পরিক্ষার সংশোধিত রুটিন:

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের অধীনের এইচএসসি ২০১৯ রুটিন প্রকাশের তারিখ: ২৪/০৩/২০১৯

পরিক্ষা প্রতিদিন সকাল ১০ টা হতে ও দুপুর ০২.০০ থেকে শুরু হবে।

পরীক্ষার সময়ঃ প্রশ্ন পত্রে যে সময় দেয়া থাকবে সেটি।

পরিক্ষা শুরুর তারিখঃ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের অধীনের এইচএসসি ২০১৯ পরিক্ষা ০১.০৪.২০১৯ তারিখে শুরু হবে ।

পরিক্ষা শেষ হবেঃ ১২/০৫/২০১৯ তারিখে পরিক্ষা শেষ হবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষার সংশোধিত রুটিন ২০১৯

২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার পরিবর্তিত সময়সূচি

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষার পূর্বের  রুটিন ২০১৯

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের অধীনের ২০১৯ সালের এইচএসসি পরিক্ষা শুরু হবে ০১.০৪.২০১৯ তারিখ থেকে এবং শেষ হবে ১১.০৫.২০১৯ তারিখে।

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ পিডিএফ ডাউনলোড  

বিশেষ প্রয়োজনে কর্তৃপক্ষ এই রুটিন পরিবর্তন করার ক্ষমতা রাখে।

গতবার এইচএসসিতে ৮টি সাধারণ বোর্ডের অধীনে ১০ লাখ ৯২ হাজার ৬০৭ জন, মাদরাসা বোর্ডের অধীনে আলিমে এক লাখ ১২৭ জন, কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসি বিএম-এ এক লাখ ১৭ হাজার ৭৫৪ জন এবং ডিআইবিএসে ৯৬৯ জন পরীক্ষায় আংশ নেয়।

এইচএসসি সমমান পরীক্ষা ২০১৮ এর নির্দেশনাঃ

এবারও শুরুতে বহুনির্বাচনী (এমসিকিউ) অংশ এবং পরে রচনামূলক অংশের পরীক্ষা হবে। ৩০ নম্বরের বহুনির্বাচনী পরীক্ষার সময় ৩০ মিনিট এবং ৭০ নম্বরের সৃজনশীল পরীক্ষার সময় আড়াই ঘণ্টা। এমসিকিউ এবং সৃজনশীল অংশের মধ্যে কোনো বিরতি থাকবে না।

যেসব বিষয়ে ব্যবহারিক পরীক্ষা রয়েছে সেগুলোর ২৫ নম্বরের বহুনির্বাচনী পরীক্ষার সময় ২৫ মিনিট এবং সৃজনশীল অংশের জন্য দুই ঘণ্টা ৩৫ মিনিট সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

পরীক্ষার্থীরা সাধারণ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে। তবে কোনো সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে না। পরীক্ষা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছাড়া অন্য কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবে না।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রাল পলসি জনিত প্রতিবন্ধী ও যাদের হাত নেই এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী শ্রুতিলেখক নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। এ ধরনের পরীক্ষার্থী ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় বরাদ্দ থাকবে।

বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন (অটিস্টিক ও ডাউন সিনড্রোম বা সেরিব্রাল পলসি আক্রান্ত) পরীক্ষার্থীদের ৩০ মিনিট অতিরিক্ত সময় ও পরীক্ষার কক্ষে অভিভাবক বা শিক্ষক বা সাহায্যকারী নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ থাকবে।

প্রশ্নফাঁস রোধে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীসহ ২৮টি ইউনিট কাজ করবে। আর প্রশ্নফাঁসের তথ্য দিতে জরুরি সেবার ‘৯৯৯’ নম্বরে কল করা যাবে।

বিশেষ নির্দেশনাঃ

১। পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট পূর্বে অবশ্যই পরীক্ষার্থীদেরকে পরীক্ষা কক্ষে আসন গ্রহণ করতে হবে।
২। প্রথমে বহুনির্বাচনি ও পরে সৃজনশীল/রচনামূলক (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
৩। ৩০ নম্বরের বহুনির্বাচনী (MCQ) পরীক্ষার ক্ষেত্রে সময় ৩০ মিনিট এবং ৭০ নম্বরের সৃজনশীল (CQ) পরীক্ষার ক্ষেত্রে সময় ২ ঘণ্টা ৩০ মিনিট।

* ব্যবহারিক বিষয় সম্বলিত পরীক্ষার ক্ষেত্রে ২৫ নম্বরের বহুনির্বাচনী (MCQ) অংশের জন্য সময় ২৫ মিনিট এবং ৫০ নম্বরের সৃজনশীল (CQ) অংশের জন্য সময় ২ ঘণ্টা ৩৫ মিনিট।

* পরীক্ষা বিরতিহীন ভাবে প্রশ্নপত্রে উল্লেখিত সময় পর্যন্ত চলবে। MCQ এবং CQ উভয় অংশের পরীক্ষার মধ্যে কোনাে বিরতি থাকবে না।

(ক) সকাল ১০.০০ টা থেকে অনুষ্ঠেয় পরীক্ষার ক্ষেত্রে সকাল ০৯.৩০ মি, অলিখিত উত্তরপত্র ও বহুনির্বাচনি OMR শিট বিতরণ সকাল ১০.০০ টা বহুনির্বাচনি প্রশ্নপত্র বিতরণ সকাল ১০.৩০ মি, বহুনির্বাচনি উত্তরপত্র (OMR শিট) সংগ্রহ ও সৃজনশীল প্রশ্নপত্র বিতরণ। (২৫ নম্বরের বহুনির্বাচনি পরীক্ষার ক্ষেত্রে এ সময় ১০.২৫ মি.)

(খ) দুপুর ০২:০০ টা থেকে অনুষ্ঠেয় পরীক্ষার ক্ষেত্রে
দুপুর ০১.৩০ মি, অলিখিত উত্তরপত্র ও বহুনির্বাচনি OMR শিট বিতরণ দুপুর ০২.০০ টা বহুনির্বাচনি প্রশ্নপত্র বিতরণ দুপুর ০২,৩০ মি, বহুনির্বাচনি উত্তরপত্র (OMR শিট) সংগ্রহ ও সৃজনশীল প্রশ্নপত্র বিতরণ।(২৫ নম্বরের বহুনির্বাচনি পরীক্ষার ক্ষেত্রে এ সময় দুপুর ০২.২৫ মি.)

(গ) ২০১৫ ও ২০১৬ সনের অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে ২০১৫ ও ২০১৬ সনের সিলেবাস অনুসারে পরীক্ষার সময় বন্টন ও মান বন্টন অনুযায়ী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

৪। প্রশ্নপত্রে উল্লিখিত সময় অনুযায়ী পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে।

৫। পরীক্ষার্থীগণ তাদের প্রবেশপত্র নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান প্রধানের নিকট হতে সংগ্রহ করবে প্রত্যেক পরীক্ষার্থী সরবরাহকৃত উত্তরপত্রে তার পরীক্ষার রােল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বর, বিষয় কোড ইত্যাদি ওএমআর ফরমে যথাযথভাবে লিখে বৃত্ত ভরাট করবে। কোন অবস্থাতেই মার্জিনের মধ্যে লেখা কিংবা অন্য কোন প্রয়ােজনে উত্তরপত্র ভাঁজ করা যাবে না।

৭। ব্যবহারিক সম্বলিত বিষয়ে তত্ত্বীয়, বহুনির্বাচনি ও ব্যবহারিক অংশে পৃথকভাবে পাস করতে হবে।

৮। প্রত্যেক পরীক্ষার্থী কেবল রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও প্রবেশ পত্রে উল্লিখিত বিষয়/বিষয়সমূহের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। কোন অবস্থাতেই অন্য বিষয়ের পরীক্ষায় অংশ্রহণ করতে পারবে।

৯। কোন পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা নিজ কলেজ/প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হবে না, পরীক্ষার্থী স্থানান্তরের মাধ্যমে আসন বিন্যাস করতে হবে।

১০। পরীক্ষার্থীগণ পরীক্ষায় সাধারণ সাইন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে। প্রােগ্রামিং ক্যাপুলেটর ব্যবহার করা যাবে না।

১১। পরীক্ষা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছাড়া অন্য কেউ মােবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না এবং কোন পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্রে মােবাইল ফোন আনতে পারবে না।

আরো খবর পেতে আমাদের ইংরেজি ভার্সন দেখুন