জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের মাস্টার্স ১ম পর্ব পরীক্ষার ফরম পূরণ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের মাস্টার্স ১ম পর্ব পরীক্ষার আবেদন ফরম পূরণের সময় বৃদ্ধি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আগামী মে-২০১৯ সালে অনুষ্ঠিতব্য ২০১৭ সালের মাস্টার্স ১ম পর্ব প্রিলিমিনারী পরীক্ষার আবেদন ফরম পূরণ সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম ইন্টারনেটের মাধ্যমে সম্পন্ন করতে হবে।

২০১৭ সালের মাস্টার্স ১ম পর্ব পরীক্ষার ফরম পূরণের সম্পূরক বিজ্ঞপ্তি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের মাস্টার্স ১ম পর্ব পরীক্ষার আবেদন ফরম পূরণে ব্যর্থ শিক্ষার্থীদের ফরম পূরণ, ফি জমাদান ও অন্যান্য কাগজপত্র জমাদানের তারিখ নিম্নলিখিত তারিখ অনুযায়ী বর্ধিত করা হলাে। উল্লেখ্য প্রতি শিক্ষার্থী ফি এর অতিরিক্ত ৫,০০০/- (পাঁচ হাজার) টাকা হারে বিলম্ব ফি প্রদান করবে।

বিঃ দ্রঃ গত ১৯/০৩/২০১৯ তারিখের প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তির অন্যান্য শর্তাবলী অপরিবর্তিত থাকবে।

আবেদন ফরম পূরণ, ফি জমাদান ও অন্যান্য তথ্যাদি নিমে উপস্থাপন করা হলাে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের মাস্টার্স ১ম পর্ব পরীক্ষার রুটিন ও কেন্দ্রতালিকা দেখুন এই লিংকে

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের মাস্টার্স ১ম পর্ব ফরম পূরণ সংক্রান্ত বিস্তারিত সময়সূচীঃ

•১৬/০৬/১৯ থেকে ২৩/০৬/১৯ তারিখ পর্যন্ত পরীক্ষার্থী কর্তৃক অনলাইনে ফরম পূরণ করে কলেজে জমা দিতে পারবে।

•২৪/০৬/১৯ তারিখ রাত ১১:৫৯ মিনিট তারিখ পর্যন্ত শিক্ষার্থীর ডাটা নিশ্চয়ন করার (কলেজ কর্তৃক) শেষ সময়।

•২৫/০৬/১৯ তারিখ কলেজ কর্তৃক সোনালী সেবার মাধ্যমে টাকা জমা দেওয়া যাবে।

•২৬/০৬/১৯ তারিখের মধ্যে Pay Slip, ফিস বিবরণী, শিক্ষার্থী বিবরণী ও অন্যান্য কাগজপত্র সংশ্লিষ্ট শাখায় জমা দিতে হবে।

আবেদন ফরম পূরণ সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম Online-এর মাধ্যমে সম্পন্ন করা হবে এবং শিক্ষার্থীদের নিজে রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে অনলাইনে ফরম পূরণ করতে হবে

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের মাস্টার্স ১ম পর্ব পরীক্ষার আবেদন ফরম পূরণের সময় বৃদ্ধি সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি

ফরম পূরণ করতে এই লিংকে ক্লিক করুন

www.nubd.info/mp

বিঃ দ্রঃ ফরম পূরণের সময় টিউটোরিয়াল নম্বর অবশ্যই এন্ট্রি দিতে হবে। টিউটোরিয়াল নম্বর পাওয়া না গেলে পরীক্ষার্থীর প্রবেশপত্র ইস্যু করা হবে না।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষার আবেদন ফরম পূরণ থেকে শুরু করে প্রবেশপত্র মুদ্রণ সকল কাজ এখন থেকে সম্পূর্ণ অনলাইনে সম্পন্ন হবে। তাই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ফরম পূরণে ব্যর্থ হলে পরীক্ষার্থী এবছর এ পরীক্ষায় অংশগ্রহণে সুযােগ পাবে না।

(ক) পরীক্ষার্থী রেজিস্ট্রেশন কার্ডে উল্লিখিত বিষয়ের পত্র কোড ব্যতীত অন্য কোন পত্র কোড-এ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না।

(খ) আবেদন ফরম পূরণের সময় পরীক্ষার্থীর টিউটোরিয়াল পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের মূল ম্যানুয়েল কপি থেকে অন-লাইনে রেজিস্ট্রেশন নম্বরের বিপরীতে এন্ট্রি করার পর প্রিন্টেড কপি যাচাই করে বিভাগীয় প্রধান ও অধ্যক্ষ কর্তৃক স্বাক্ষরিত হবার পর মূল কপিগুলাে বিষয়ওয়ারী আলাদা খামে সিলগালা করে মােঃআব্দুছ সালাম, উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, প্রিলিমিনারী টু মাস্টার্স, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, গাজীপুর-এ পরীক্ষার্থীদের বিবরণীর সাথে হাতে হাতে জমা দিতে হবে এবং ফটোকপি কলেজে সংরক্ষণ করতে হবে। মূল ম্যানুয়াল কপির বাইরে কোন নম্বর গ্রহণ করা হবে না।

(গ) মৌখিক/ব্যবহারিক/মাঠকর্ম/ম্যাথ ল্যাব এর নম্বরসমূহ প্রেরণের নির্দেশনা পরবর্তীতে জানানাে হবে।

পরীক্ষায় অংশগ্রহণের যােগ্যতা :

**২০১৩-২০১৪ শিক্ষাবর্ষে পরীক্ষার্থীদের জন্যঃ
ক) যে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৪ অথবা ২০১৫ সালে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেনি সে সকল পরীক্ষার্থী সব পত্রে অংশগ্রহণ করবে।

খ) যে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৪ সালে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে অকৃতকার্য হয়েছে বা ২০১৫ সালের এক বা দুই পত্র পরীক্ষা দিয়ে পুনরায় অকৃতকার্য হয়েছে সে সকল পরীক্ষার্থী সব পত্রের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।

গ) যে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৪ সালে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেনি এবং ২০১৫ সালে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে অকৃতকার্য হয়েছে সে সকল পরীক্ষার্থী ইচ্ছে করলে বিশেষ পরীক্ষা (এক বা একাধিক পত্রে) দিতে পারবে। এ ক্ষেত্রে ৩০০/- (তিনশত) টাকা বিশেষ অন্তর্ভুক্তি ফি এবং প্রতি পত্রের ফি ৩০০/- (তিনশত) টাকা জমা সাপেক্ষে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।

** ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষে পরীক্ষার্থীদের জন্য :
ক) যে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৫ সালে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেনি সে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৭ সালের সকল পত্রের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।

খ) যে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৫ সালে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে অকৃতকার্য হয়েছে সে সকল পরীক্ষার্থী বিশেষ পরীক্ষার্থী হিসেবে এক বা একাধিক পত্রে পরীক্ষা দিতে পারবে।

গ) ২০১৫ সালের প্রিলিমিনারী টু মাস্টার্স পরীক্ষা অংশগ্রহণ করে অকৃতকার্য পরীক্ষার্থী ২০১৭ সালের বিশেষ পরীক্ষার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করতে পারবে। অকৃতকার্য পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে ২০১৫ সালের ব্যবহারিক/ মৌখিক/ টিউটোরিয়াল/ মাঠকর্ম পরীক্ষার নম্বর বহাল থাকবে। এ ধরণের পরীক্ষার্থী ২০১৫ সালের পরীক্ষায় যে সকল পত্রে ৪৫% এর কম নম্বর পেয়েছে শুধু ঐ পত্রগুলােতে অংশগ্রহণ করতে পারবে। এখানে উল্লেখ্য যে, ২০১৪ সালের যে সকল পরীক্ষার্থী ব্যবহারিক/ মৌখিক টিউটোরিয়াল/ মাঠকর্ম পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে তাদের পূর্বের প্রাপ্ত নম্বর বহাল থাকবে। তবে ৪০% এর কম নম্বর থাকলে ঐ সকল পরীক্ষার্থী ব্যবহারিক/ মৌখিক টিউটোরিয়াল/ মাঠকর্ম পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।

** ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষে পরীক্ষার্থীদের জন্য
ক) যে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের, তারা ২০১৭ সালে নিয়মিত পরীক্ষার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করবে।

খ) যে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৫ সালের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে শুধুমাত্র মৌখিক পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিল, তারা ২০১৭ সালের শুধু মৌখিক পরীক্ষা দেয়ার সুযােগ পাবে। এ ক্ষেত্রে মৌখিক পরীক্ষার ফি ১০০০/- (এক হাজার) টাকা জমা সাপেক্ষে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।

পাঠ্যসূচি : (জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যসূচি অনুযায়ী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে)

ক) ২০০৪-২০০৫ শিক্ষাবর্ষের জন্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রণীত সিলেবাস অনুযায়ী ২০১৭ সালের এম.এ/এম.এস,এস/ এম.বি.এস/এম.এসসি এম মিউজ ১ম পর্ব পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

আবেদন ফরম, বিবরণী ফরম ও ফি জমাদান ফরম সংগ্রহ :

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইট থেকে ফরম পূরণের আবেদন ফরম, সম্ভাব্য পরীক্ষার্থীদের তালিকা (Probable List), Online-এ ডাটা এন্ট্রি করার পর বিষয়ওয়ারী পরীক্ষার্থীদের বিবরণী ফরম ও ফি জমাদান ফরম সংগ্রহ/প্রিন্ট করা যাবে।

আবেদন ফরম ও বিবরণী ফরম পূরণের নিয়মাবলী (পরীক্ষার্থীদের জন্য)

ক) আবেদনকারীকে নিজ দায়িত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের উল্লিখিত ওয়েবসাইট-এ প্রবেশ করে নিজের রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে ও ওয়েবসাইটের নির্দেশনা অনুযায়ী ফরম পূরণের আবেদন করতে হবে। আবেদন ফরম পূরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে, অনলাইন থেকে একটি আবেদন ফরম প্রিন্ট করে নিতে হবে। পূরণকৃত ফরমটিতে পরীক্ষার্থীর বিষয়কোড এবং ফি উল্লেখ থাকবে। ফিসহ প্রিন্টকৃত কপি আবেদনকারীকে কলেজ কর্তৃক নির্ধারিত ডেস্কে জমা দিতে হবে।

খ) আবেদনকারীকে সদ্য তােলা ০২ (দুই) কপি পাসপাের্ট সাইজের ছবি (সত্যায়িত) করে আবেদনপত্রের সাথে সংযুক্ত করতে হবে।

গ) বিশেষ পরীক্ষার্থীকে সর্তকতার সহিত নিজ দায়িত্বে পত্রকোড এন্ট্রি দিতে হবে।

অনলাইনে ফরম পূরণের পর কলেজে জমা দিতে যে সকল কাগজপত্র লাগবেঃ

*অনলাইনে পুরণকৃত ফরম- ২ কপি।
*পাসপোর্ট সাইজের ছবি (অধ্যক্ষ কর্তৃক সত্যায়িত)- ২ কপি।
*রেজিস্ট্রেশন কার্ড এর ফটোকপি ২ কপি।
*বিগত বছরের ফলাফল এর অনলাইন কপি – ২ কপি।

বিঃদ্রঃ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজভেদে ভিন্ন হতে পারে।

পরীক্ষার্থীদের সমস্যা নিরসনের জন্য ০২-৯২৯১০৪৬ নম্বরে ও ইমেল [email protected] যােগাযােগ করা যেতে পারে।

ওয়েব সাইট : www.nubd.info/mp
ই-মেইল : [email protected]

বিশেষ দ্রষ্টব্য :
ক) একজন পরীক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন নম্বরের (অনার্স পাস/ ডিগ্রী পাস) ফলাফল ব্যবহার করে অন্য পরীক্ষার্থীকে অবৈধভাবে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযােগ দেয়া হলে তার দায় দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট কলেজ বহন করবে।

খ) পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা হলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক সরবরাহকৃত মূল রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও প্রবেশ পত্র প্রদর্শন করতে হবে।

গ) পরীক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন কার্ডে উল্লেখিত নির্দিষ্ট বিষয় ছাড়া (বিশেষ পরীক্ষার্থী ব্যতিত) অন্য কোন বিষয়ে আবেদন ফরম পূরণ করলে তার আবেদন পত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।

ঘ) পরীক্ষার সময়সূচি যথাসময়ে সংশ্লিষ্ট কলেজ/কেন্দ্রসমূহে প্রেরণ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে WWW.nu.edu.bd প্রকাশ করা হবে।

ঙ) পরীক্ষার্থীরা নিজ কলেজে পরীক্ষা দিতে পারবে না। অধ্যক্ষগণকে এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সকলকে অবহিত করার জন্য অনুরােধ করা হলাে।