প্রমোশনের দাবিতে আমরণ অনশন করছে ৭ কলেজের শিক্ষার্থীরা

তিন বিষয়ে প্রমোশনের দাবিতে সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশন চলছে। কবি নজরুল সরকারি কলেজের শিক্ষকদের অবরুদ্ধ করে আমরণ অনশন করছেন সাত কলেজের ২০১৭-১৮ এবং ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা। রবিবার (২৪ শে জানুয়ারি ) বেলা ১১টায় পুরান ঢাকার কবি নজরুল সরকারি কলেজের মূল ফটক অবরোধ করে এই আন্দোলন করেন শিক্ষার্থীরা।

আরো পড়ুন- সাত সরকারি কলেজে ভয়াবহ সেশনজট

‘আশ্বাস নয়, সমাধান চাই’, ‘উই ওয়ান্ট প্রমোশন’, ‘৩ বিষয়ে প্রমোশন চাই’, ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায় বৈষম্যের ঠাঁই নাই’ সহ নানান রকমের স্লোগান দিয়ে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা।

বিকাশ এপ ডাউনলোড করে লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস, সাথে ৫০ টাকা বোনাস একদম ফ্রী - Bkash App Download Link শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে EducationsinBD এর চ্যানেলের সাথেই থাকুন। আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel

এ বিষয়ে ইডেন মহিলা কলেজের ২০১৭-১৮ বর্ষের শিক্ষার্থী দিলরুবা চৌধুরী বলেন, সেশনজট এবং অনাকাঙ্ক্ষিত ফলাফল বিপর্যয়ের কারণে অনেক সময় নষ্ট হয়ে গিয়েছে। দয়া করে আমাদের শিক্ষাজীবন থেকে ৩টি বছর নষ্ট করবেন না। আমরা ৩ বিষয়ে প্রমোশন চাই।

কবি নজরুল সরকারি কলেজের ১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী তাকিবুর রহমান (বাপ্পী) জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিমুখী আচরণ এবং গাফিলতির ফলে হাজারো শিক্ষার্থীর জীবন বিপন্ন হচ্ছে। বারংবার স্মারকলিপি এবং মানববন্ধন করেও আমাদের সমস্যার সমাধান হয়নি। এজন্য দাবি আদায়ের লক্ষ্য আজ আমরা আমরণ কর্মসূচি পালন করছি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নানান অনিয়ম এবং বৈষম্যের বিরুদ্ধেও বক্তব্য দেন তারা। তীব্র সেশনজট নিরসন, অনাকাঙ্ক্ষিত ফলাফল বিপর্যয়, ফলাফল প্রকাশে দীর্ঘসূত্রতা দূরীকরণসহ বিভিন্ন ধরনের সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যেই এই কর্মসূচি পালন করছেন অধিভুক্ত সাত কলেজের ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা।

এ ব্যাপারে সাত কলেজের প্রধান সমন্বয়ক কবি নজরুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্লাহ খন্দকারকে একাধিকবার ফোন করেও পাওয়া যায়নি।

এদিকে অনশনে চারজন শিক্ষার্থী অসুস্থ পড়েছেন। তাছাড়া স্যালাইন দিয়ে অনেকেই অনশনে অবস্থান করছেন। অসুস্থ শিক্ষার্থীরা হলেন, সরকারি তিতুমীর কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী রায়হান, কবি নজরুল সরকারি কলেজের ব্যবসা বিভাগের শিক্ষার্থী হাসান, বদরুন্নেসা কলেজের শিক্ষার্থী নিগাত ও ইডেন কলেজের শিক্ষার্থী আফরিন সুলতানা।

ইডেন কলেজের শিক্ষার্থী নুসরাত আখতার বলেন,অনশন কর্মসূচীতে তিতুমীর কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী রায়হান অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। অথচ কোনো শিক্ষক আমাদের খোজ নিতে আসেননি।

এ বিষয়ে আন্দোলনের মুখপাত্র মাসুদ রানা বলেন, নজরুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার সাত দিনের মধ্যে আমাদের তিন বিষয়ে প্রমোশনের ব্যাপারে  ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেওয়ার ১৩ দিন পার হলেও এখনো কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। আজকের মধ্যেই তিন বিষয়ে প্রমোশনের সিদ্ধান্ত না নেওয়া হলে আমরন অনশন কর্মসূচি চালিয়ে যাব।

উল্লেখ্য, বিগত কয়েকবার দফায় দফায় আন্দোলন এবং মানববন্ধন করেও কোনও কার্যকরী ফলাফল না পাওয়ায় শিক্ষার্থীরা এবার আমরণ অনশনের সিদ্ধান্ত নেয়।

Educations in BD ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel Grameenphone এর মাইজিপি এপ ডাউনলোড করে জিতে নিন ৩ জিবি ফ্রি ইন্টারনেট এবং ফ্রি পয়েন্ট MyGP App Download Now

Leave a Reply