বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের আজকের সর্বশেষ পরিস্থিতি

করোনাভাইরাসের আজকের সর্বশেষ আপডেট নিয়ে এখানে আলোচনা করা হবে। বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের আজকের সর্বশেষ পরিস্থিতি দেখুন এখানে। বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে নতুন আক্রান্ত, মোট আক্রান্তের সংখ্যা, মৃত্যুর সংখ্যা এখানে তুলে ধরা হবে। পাশাপাশি সারা বিশ্বের করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের আপডেট দেখুন এখানে।

করোনা বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনের অংশ হিসেবে আজ দুপুর ৩.৩০ টায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে আইইডিসিআর-এর সভাকক্ষে অনলাইন প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়। ব্রিফিং-এ অংশ নেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। করোনাভাইরাস নিয়ে প্রেস ব্রিফিং এর বিস্তারিত তুলে ধরা হলো।

আরো পড়ুন- করোনা ভাইরাস থেকে নিজেকে রক্ষা করবেন যেভাবে

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের আপডেট
তারিখ- ৩১ মার্চ ২০২০

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে EducationsinBD এর চ্যানেলের সাথেই থাকুন। আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel নতুন বিকাশ অ্যাপ থেকে নিজের একাউন্ট খুলুন মিনিটেই, শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে। কোথাও যেতে হবে না! আর অ্যাপ থেকে একাউন্ট খুলে প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস!সাথে আছে আরো অ্যাপ অফার: - প্রথম বার ২৫ টাকা রিচার্জে ৫০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস .সর্বমোট ১৫০ টাকা বোনাস পাবেন একজন বিকাশ গ্রাহক। এছাড়া যারা একাউন্ট খুলেছেন তারাও বিকাশ এপ ডাউনলোড করে প্রথম প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস! Bkash App Download Link

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি (সূত্রঃ আইইডিসিআর, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর)

বাংলাদেশে আরো ২ জনের মধ্যে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ।
এনিয়ে বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫১ জন। তবে এরই মধ্যে মোট ২৬ জন সুস্থ হয়ে যাওয়ায় এবং আক্রান্তদের ৫ জন মারা যাওয়ায় এই মুহুর্তে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ২০ জন।

এ নিয়ে বাংলাদেশে মোট ৪১ জনের মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ল, যাদের মধ্যে মোট ২৬ জন ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। আজ আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কারও মৃত্যু হয়নি; মোট মৃতের সংখ্যা ৫ জনই আছে।

বাংলাদেশে আজ পর্যন্ত মোট ১৬০২ জন ব্যক্তির কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হয়েছে, যার মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় করা হয়েছে ১৪০ জনের পরীক্ষা। এ পর্যন্ত মোট ৫১ জন কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগী পাওয়া গেছে, যার মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় এ সংখ্যা ২। বাংলাদেশে COVID-19 আক্রান্ত হয়ে মোট মৃতের সংখ্যা ৫, তন্মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর সংখ্যা ০ এবং অদ্যাবধি সুস্থ্য হয়ে বাড়ী ফিরে গেছেন ২৬ জন এবং চিকিৎসাধীন আছেন ২০ জন।

বৈশ্বিক ও আঞ্চলিক করোনাভাইরাস পরিস্থিতি (সূত্র: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা)

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বিশ্বে সর্বমোট ৭,৯৯,৭০৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৮,৭২০ জন। বিশ্বে মোট ৭,৯৯,৭০৩ জনের মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়লেও এদের মধ্যে মোট ১৬৯,৯৭৪ জন ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

বিশ্বে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এখন সবচাইতে বেশী, এখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা  ১৬৪,৩৫৯ এবং মৃত্যুর সংখ্যা ৩,১৭৩ জন। সবথেকে ইতালিতে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি এখানে ১০১,৭৩৯ আক্রান্ত হয়েছে, তাদের মধ্যে ১১,৫৯১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আরো পড়ুন- করোনা ভাইরাস রোগ প্রতিরোধে করণীয় বিষয় ও পরামর্শ

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধে নিম্নোক্ত নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে

• বিদেশ থেকে আগত এবং তাদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিকে হােম কোয়ারেন্টিনে যেতে হবে। এক্ষেত্রে সর্বসাধারণের সহযােগিতা প্রয়ােজন।
• খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের না হওয়া ভালাে।
• ঘরের বাইরে গেলে ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল করতে হবে।
• জরুরি প্রয়ােজনে যারা ঘরের বাইরে যাবেন, তারা সবাই মাস্ক পরিধান করবেন।
• বাজারে মাস্কের সংকট থাকলে তিন স্তর বিশিষ্ট নতুন বা পুরনাে কাপড় ব্যবহার করে মাস্ক বানানাে যেতে পারে।
• গণপরিবহন এড়িয়ে চলাচলের সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে। যেকোন ভীড় এড়িয়ে চলতে হবে।
• কারও প্রতিবেশী, আত্মীয়স্বজন করােনা আক্রান্ত দেশ থেকে এসে হােম কোয়ারেন্টিনে না থাকলে বা বাইরে ঘােরাফেরা করলে তা অবশ্যই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হটলাইনে নম্বরে ফোনা দিয়ে বা স্থানীয় পর্যায়ে কােরোনা মােকাবেলায় গঠিত কমিটিগুলােকে অবহিত করতে হবে।
• বারবার বাজারে বা দোকানে না গিয়ে এক সপ্তাহের বাজার করে রাখা যেতে পারে। নিত্যপ্রয়ােজনীয় পণ্য মজুদ করা থেকে বিরত থাকতে হবে।
• স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি, ধনাত ব্যক্তি, সমাজসেবীদের বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণের আহ্বান জানানাে হচ্ছে।
• ঘন ঘন হাত ধুতে হবে।
• কারও গলাব্যথা হলে তিনি কুসুমপানিতে গড়গড়া করতে পারেন ও জ্বর হলে প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধ খেতে পারেন।
• সাধারণ রোগে আক্রান্তদের এখন হাসপাতালে না যাওয়াই ভালাে।
• অন্য রােগে আক্রান্ত ব্যক্তি, যাদের অস্ত্রোপচার কয়েক মাস পরে করলেও চলবে, তাদের এখন হাসপাতালে ভর্তি হওয়া উচিৎ হবে না।
• এখন থেকে দেশের কোন হাসপাতালে দর্শনার্থীদের প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।
• অন্যের সহযােগিতা জরুরি, এমন রােগীর সাথে শুধু একজন সাহায্যকারী থাকতে পারবেন।

করোনাভাইরাস বিষয়ক ও ঘরে বসে চিকিৎসকের পরামর্শ পেতে কল করু

শ্বাসকষ্ট, হাঁপানি, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ হলে হটলাইনে (১৬২৬৩, ৩৩৩) অথবা টেলিফোনে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া যেতে পারে।
সাধারণ সর্দি, কাশি হলে হাসপাতালে যাওয়ার প্রয়ােজন নেই। করোনাভাইরাস বিষয়ক এবং সাধারণ সর্দি, কাশি ও জ্বরের চিকিৎসার জন্য
ঘরে বসে চিকিৎসকের পরামর্শ পেতে কল করুন- ১৬২৬৩ (স্বাস্থ্য বাতায়ন), ৩৩৩ এবং আইইডিসিআর-এর হটলাইন- ০১৯৩৭১১০০১১,
০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪ এবং ০১৯২৭৭১১৭৮৫ নম্বরে।

করােনা (COVID 19) পরীক্ষা করার জন্য ৩টি স্থানে PCR মেশিন স্থাপিত হয়েছে। প্রতিষ্ঠানসমূহ হচ্ছে জনস্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান (IPH, ঢাকা শিশু হাসপাতাল, বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজ চট্টগ্রাম (BITID)।
এছাড়াও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অতি শীঘ্রই PCR
মেশিন স্থাপিত হবে। উল্লেখ্য যে ঢাকা শিশু হাসপাতালে PCR মেশিনের মাধ্যমে করােনা ভাইরাস পরীক্ষা Child Health Research Foundation এর সহায়তায় করা হবে।

আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel