বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত ৩ নভেম্বর

দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আগামী মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) ত্রিপক্ষীয় বৈঠক বসছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) ও ‘উপাচার্য পরিষদ’। বৈঠকে প্রধান অতিথি থাকবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। আজ বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহিদুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠক শেষে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আরো পড়ুন- গুচ্ছ পদ্ধতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তা

বৈঠকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে পরীক্ষা নেয়ার জন্য বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মুনাজ আহমেদ নূরের উদ্ভাবিত সফটওয়্যারের সক্ষমতা যাচাই করতে পাচ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ইউজিসি পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগের পরিচালক ড. ফেরদৌস জামান বলেন, আগামী মঙ্গলবার অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনে ক্ষেত্রে সফটওয়্যার ব্যবহারের বিষয়ে আলোচনা করতে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত। বৈঠকে অধ্যাপক মুনাজ আহমেদ নূরের সফটওয়্যারের উপর একটি প্রেজেন্টেশন হবে। সফটওয়্যারে অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নেয়া কতটা সম্ভব হবে সে বিষয়টি নিরীক্ষার জন্য কয়েকজন বিশেষজ্ঞ বা সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারও যুক্ত হবেন।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে EducationsinBD এর চ্যানেলের সাথেই থাকুন। আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel নতুন বিকাশ অ্যাপ থেকে নিজের একাউন্ট খুলুন মিনিটেই, শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে। কোথাও যেতে হবে না! আর অ্যাপ থেকে একাউন্ট খুলে প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস!সাথে আছে আরো অ্যাপ অফার: - প্রথম বার ২৫ টাকা রিচার্জে ৫০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস .সর্বমোট ১৫০ টাকা বোনাস পাবেন একজন বিকাশ গ্রাহক। এছাড়া যারা একাউন্ট খুলেছেন তারাও বিকাশ এপ ডাউনলোড করে প্রথম প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস! Bkash App Download Link

আমাদের আজকের বৈঠক মূলত উপাচার্যদের সংগঠন ‘উপাচার্য পরিষদ’র চিঠির আলোকে হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, চিঠিতে অধ্যাপক নুরের উদ্ভাবিত সফটওয়্যার ব্যবহার করে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজের বিষয়ে জানতে চেয়েছিলেন। যেহেতু আমরা এই সফটওয়্যারের বিষয়ে তেমন জানি না। তাই এই বিষয়ে পরামর্শ নিতে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আরো পড়ুন- পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইন ভর্তি পরীক্ষা বাতিলের দাবি

তিনি আরও বলেন, কমিটির পাঁচজনের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সাইন্সের একজন অধ্যাপক, বুয়েট থেকে একজন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য এবং আমেরিকার দুইজন প্রফেসরকে রাখা হয়েছে। তারা এই সফটওয়্যারের সক্ষমতা যাচাই করে দেখবেন। এরপর তারা আমাদের কাছে যে সুপারিশ করবেন তার আলোকে আমরা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাথে বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নিবো।

Educations in BD ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel

Leave a Reply