Mon. Apr 6th, 2020

Educations in Bd

Online Educations in Bd | Getting Education Through Online

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাড়পত্রের মাধ্যমে কলেজ পরিবর্তনের নিয়মাবলী

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাড়পত্রের মাধ্যমে কলেজ পরিবর্তনের নিয়মাবলী। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এক কলেজ থেকে অন্য কলেজে ট্রানস্ফার হওয়ার নিয়মকানুন। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কলেজ থেকে অন্য কলেজে ছাড়পত্র টিসি (TC) নেওয়ার পদ্ধতি। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ পরিবর্তন প্রক্রিয়া।

আমরা অনেক সময় মনমত কলেজে ভর্তি হতে পারিনা অথবা বাধ্য হয়ে রিলিজ স্লিপে অন্য কলেজে ভর্তি হতে হয়। দূরবর্তী হওয়ার কারনে আমাদের সেই কলেজে সঠিকভাবে পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হয় না। এছাড়াও চাকুরীরত অভিভাবক (পিতামাতা স্বামী) অন্য জেলায় বদলী হলে অথবা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলে আমাদের কলেজ পরিবর্তনের প্রয়োজন পড়ে।

তখন আমরা উপায় খুজি কিভাবে এক কলেজ থেকে অন্য কলেজে ট্রান্সফার হওয়া যায়। এখানে আপনাদের সামনে তুলে ধরব জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ পরিবর্তন প্রক্রিয়া এক কলেজ থেকে অন্য কলেজে ট্রান্সফার হওয়ার নিয়ম। আসুন জেনে নেওয়া যাক কি কি কারণ দর্শানো ব্যতিরকে আমরা এক কলেজ থেকে অন্য কলেজে ট্রান্সফার (TC) বা কলেজ পরিবর্তন করতে পারি।

আরো পড়ুন- জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রমোশনের সংশোধিত নিয়ম 

শিক্ষা সংক্রান্ত সকল তথ্য পেতে আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel

যেসব কারণে ছাড়পত্রের মাধ্যমে কলেজ পরিবর্তনের আবেদন করা যাবে  

• চাকুরীরত অভিভাবক (পিতামাতা স্বামী) অন্য জেলায় বদলী হলে, পিতা/মাতা জীবিত না থাকলে অসমর্থ হলে আইনানুক অভিভাবকের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিতে হবে শুধুমাত্র সরকারী, স্বায়ত্বশাসিত ও আধা সরকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আভিভাবকের বদলী জনিত কারনে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে। চাকুরিরত অভিভাবকের বদলীর আদেশ, যোগদানপত্র, চাকুরীর আইডি কার্ড ও অভিভাবকের সতিপত্র আবেদনের সাথে সংযুক্তি করতে হবে।

• মেয়ে শিক্ষার্থী বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলে (স্নাতক পাস শ্রেণীতে ভর্তির পর) ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করা যাবে, সে ক্ষেত্রে বিবাহের কাবিননামা, (খ্রীষ্টান ও বৌদ্ধদের) ক্ষেত্রে ১ম শ্রেণীর গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান/ওয়ার্ড কাউন্সিলর কর্তৃক প্রত্যয়নপত্র, স্বামী-স্ত্রীর যৌথ ছবি ও বিয়ের দাওয়াতপত্র, স্বামী যে প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করেন তার প্রত্যয়নপত্র, যোগদানপত্ৰ, জাতীয় পরিচয়পত্র/অন্য কর্মে নিয়োজিত তার প্রামান্যপত্র দাখিল করতে হবে।

• শিক্ষার্থী তার স্থায়ী ঠিকানার নিকটবর্তী কলেজে যৌক্তিক কারণে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে যদি তার নিজের তোলার কোন কলেজে তার পঠিত বিষয় সমূহ অধিভুক্তি না থাকে তাহলে পাশ্ববর্তী জেলার নিকটবর্তী কলেজে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে। সে ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীর নিজের পিতামাতা এর জাতীয় পরিচয়পত্র ও অভিভাবকের মতামত পত্র জমা দিতে হবে । কর্তৃপক্ষ বিষয়টি বিবেচনার যোগ্য মনে করলে TC দিবেন।

• অভিভাবকের মৃত্যজনিত কারনে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে, যদি অভিভাবক সদ্য মৃত্যুবরন করেন সেক্ষেত্রে ডাক্তার কর্তৃক ডেথ সার্টিফিকেট এর কপি অথবা চেয়ারম্যান কর্তৃক প্রত্যয়নপত্র জমা দিতে হবে। আভিভাবকের মৃত্যুজনিত কারনে আভিভাবকের দায়িত্ব যার উপর অর্পিত হয়েছে তার সম্মতিপত্র তার পেশা ও কর্মস্থল সংক্রান্ত প্রামান্যপত্র ও জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি আবেদনের সাথে জমা দিতে হবে।

• শিক্ষার্থী প্রতিবন্ধী হলে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে, এক্ষেত্রে প্রতিবন্ধী বিষয়ে সমাজকল্যাণ অধিদপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত সনদপত্র জমা দিতে হবে।

• সংশ্লিষ্ট কলেজের শিক্ষা কার্যক্রমবিষয়ের অধিভুক্তি স্থগিত হলে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে, এ ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিদর্শন শাখা কর্তৃক প্রদত অধিভুক্তি বাতিলের পত্র সংযুক্ত করতে হবে ।

যেসব কারণে ছাড়পত্রের মাধ্যমে কলেজ পরিবর্তনের আবেদন করা যাবে না

• ছাড়পত্র পাওয়ার জন্য শিক্ষার্থীকে অবশ্যই ১ম বর্ষ উত্তীর্ণ হতে হবে উত্তীর্ণ না হইলে সে ছাড়পত্র পাবে না।

• স্নাতক (সম্মান ) শ্রেণীতে ৩য় ও ৪র্থ বর্ষে বিশেষ কারণ ছাড়া ছাড়পত্র প্রদান করা যাবে না।

• স্নাতক (সম্মান ) শ্রেণীতে ৩য় ও ৪র্থ বর্ষে বিশেষ কারণ ছাড়া ছাড়পত্র প্রদান করা যাবে না।

• কোর্স ফাইনাল পরীক্ষার ফরম পূরণ শুরু হলে ছাড়পত্র ইস্যু করা যাবে না।

• প্রতিটি বর্ষের রেজাল্ট প্রকাশের ৪৫ দিন পরে আর আবেদনে করার সুযোগ থাকবে না।

• শিক্ষার্থী একটি কলেজে ১ম বর্ষে
ভর্তির আবেদন করেছিল কিন্তু রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে অন্য কলেজে ভর্তি হয়েছে সে ক্ষেত্রে পূর্বে আবেদনকৃত কলেজে বা কলেজে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবেনা।

• একজন শিক্ষার্থী একাধিক বার ছাড়পত্র নিতে পারবে না ।

ছাড়পত্রের মাধ্যমে কলেজ পরিবর্তনের শর্তাবলি

• ১ম বর্ষ অবস্থায় আবেদন করা যাবে না, ২য়, ৩য় অথবা ৪র্থ বর্ষে আবেদন করা যাবে।

• একজন শিক্ষার্থী ফলাফল প্রকাশের দিন থেকে ৪৫ দিনের মধ্যে অনলাইনে ছাড়পত্রের জন্য প্রাথমিক আবেদন করতে পারবে।

• আবেদন করার নির্দিষ্ট সময় হল ১ম বর্ষের রেজাল্ট প্রকাশের পর থেকে ৪৫ এর মধ্যে, ২য় বর্ষের রেজাল্ট প্রকাশের পর থেকে ৪৫ এর মধ্যে এবং ৩য় বর্ষের রেজাল্ট প্রকাশের পর থেকে ৪৫ এর মধ্যে।

• আবেদনের সাথে প্রার্থীর মোবাইল নম্বর সংযুক্ত করতে হবে।

• ছাড়পত্রের আবেদনের সাথে উভয় কলেজের অধ্যক্ষের সুপারিশ, রেজিঃ কার্ড, প্রবেশপত্র ও পরীক্ষার ফলাফল এবং উভয় কলেজের সর্বশেষ অধিভুক্ত বিষয়ের নবায়নের কপি জমা দিতে হবে।

• ছাড়পত্র প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের কেবলমাত্র চলতি বছরের ছয় (০৬) মাসের বেতন (ফি ব্যতীত) পরিশোধ করতে হবে।

• সরকারী কলেজ হতে সরকারী ও বেসরকারী কলেজে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করা যাবে।

• বেসরকারী কলেজ হতে বেসরকারী কলেজ ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে কিন্তু বেসরকারী কলেজ হতে সরকারী কলেজে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে না।

• একই জেলার বিভাগীয় শহরে অবস্থিত দুটি কলেজের মধ্যে ছাড়পত্রের অনুমোদন দেয়া যাবে না তবে বিশেষ কারনবশত মেয়ে শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে উক্ত শর্ত শিথিল যোগ্য।

• ছাড়পত্রের আবেদন করার সময় Reason এর স্থানে ছাড়পত্রের কারণ স্পষ্ট করে অবশ্যই উল্লেখ করতে হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ পরিবর্তন আবেদন করার নিয়মকানুনঃ

• জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ পরিবর্তনের আবেদন করতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (nu.edu.bd) এর Services মেনু তে গিয়ে Student Login এ গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশন এর পদ্ধতি জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন

• রেজিস্ট্রেশন করা হয়ে গেলে প্রথমে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের Student Login এ গিয়ে আপনার user id ও Password এন্ট্রি দিয়ে লগইন করুন।

• এরপর Academic Services এ গিয়ে Services List এ ক্লিক করুন বিভিন্ন একাডেমিক সার্ভিসগুলো দেখতে পারবেন।

• এরপর একাডেমিক সার্ভিসের Transfer College(TC) ক্লিক করুন সিলেক্ট করার পর একটা ফরম দেখতে পারবেন।

• উক্ত ফরমে গিয়ে আপনার Target College Name অর্থাৎ যে কলেজে ট্রান্সফার নিতে চান সেই কলেজ সিলেক্ট করতে হবে৷

• এরপর File Attachment এ গিয়ে কলেজ পরিবর্তনের বিভিন্ন নথি সংযুক্ত করুন। এখানে কলেজ পরিবর্তনের আবেদন ফর্ম, প্রবেশ পত্র, রেজিস্ট্রেশন কার্ড এবং ফলাফলের সত্যায়িত কপি ইত্যাদি সংযুক্ত করতে হবে। উক্ত ফাইল doc, docx, pdf, png, jpg, jpeg, gif ফরমেটে আপলোড করা যাবে এবং ফাইলের সর্বোচ্চ সাইজ ২ এমবির বেশি হওয়া যাবে না৷

• এরপর Reason এ গিয়ে আপনি কি কারণে কলেজ পরিবর্তন করতে চান সেটা উল্লেখ করতে হবে। যেমনঃ বিবাহের জন্য, চাকুরীরত অভিভাবক (পিতামাতা স্বামী) অন্য জেলায় বদলী।

• এরপর Proceed বাটনে ক্লিক করার পর সোনালী ব্যাংকের ১০০০ টাকার পে স্লিপ দেখতে পারবেন। উক্ত পে স্লিপ সোনালী ব্যাংকের যেকোনো শাখায় জমা দিতে হবে।

• কাজ শেষ এরপর প্রাথমিক আবেদন যাচাই বাছাই করে এক সপ্তাহের মধ্যেই প্রদত্ত মোবাইল নম্বরে SMS এর মাধ্যমে তার আবেদন বিবেচনা যোগ্য কিনা তা জানিয়ে দেওয়া হবে।। অথবা student login এ গিয়ে আপনার আবেদনের সর্বশেষ অবস্থা জানতে পারবেন।

• আবেদন গ্রহণযোগ্য হলে প্রার্থীকে ছাড়পত্রের ফিসহ নির্ধারিত ফরমে বিশ্ববিদ্যালয়ে চূড়ান্ত আবেদনপত্র জমা দিতে হবে। চূড়ান্ত আবেদনের সাথে শুধুমাত্র ছাড়পত্র প্রদানকারী কলেজের অনাপত্তিপত্র জমা দিতে হবে।

আরো পড়ুন- জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি বাতিল প্রক্রিয়া

উল্লেখ্য যে, শিক্ষার গুনগত মানোন্নয়নের প্রতি লক্ষ রেখে ছাড়পত্র অনুমোদনের ক্ষেত্রে প্রার্থী যে কলেজে ভর্তি হতে ইচ্ছুক সে কলেজের প্রার্থীত বিষয়ের শিক্ষার্থী – শিক্ষক সংখ্যানুপাত Optimum সংখ্যার অনেক বেশী হলে প্রার্থীর আবেদন বিবেচনা করা হবে না। কোর্স ফাইনাল পরীক্ষার ফরম পূরণ শুরু হলে ছাড়পত্র ইস্যু করা যাবে না। তাছাড়া স্নাতক (সম্মান ) শ্রেণীতে ৩য় ও ৪র্থ বর্ষে বিশেষ কারণ ছাড়া ছাড়পত্র প্রদান করা যাবে না। প্রামাণ্য তথ্যে কোন জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়া গেলে শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল বলে গন্য হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাড়পত্রের মাধ্যমে কলেজ পরিবর্তনের আবেদন ফরম

ছাড়পত্রের মাধ্যমে কলেজ পরিবর্তনের সাধারন কিছু প্রশ্নের উত্তরঃ

• সরকারী থেকে বেসরকারী কলেজে আবেদন করা  যায়, কিন্তু বেসরকারী থেকে সরকারী কলেজে যাওয়া যায় না।

• অনার্স ও ডিগ্রী উভয় ক্ষেত্রে এ TC প্রযোয্য।

• ছাড়পত্র প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের আগের কলেজের কেবলমাত্র চলতি বছরের ছয় (০৬) মাসের বেতন (ফি ব্যতীত) পরিশোধ করতে হবে।

• একই জেলার ভিতরে অন্য কলেজে স্থানান্তরিত হওয়া যায় না।

• সরকারী ও বেসরকারী সকল কলেজ থেকে প্রাপ্ত ডিগ্রীর মান সমান।

• একটি কলেজে TC না দিলে পরবর্তিতে আবার অন্য অন্য কলেজের জন্য আবেদন করতে পারবে।

• TC এর প্রক্রিয়াটি www.nu.edu.bd অনলাইনে করা হয়, তাই এতে কোন ব্যক্তি দ্বারা অবৈধ ভাবে প্রভাবিত করা সম্ভব না।

• কোন বিষয়ে ফেল থাকা সত্বেও যদি Promotion পাই তাহলে কলেজ পরিবর্তনের আবেদন করতে পারবে।

• কলেজ পরিবর্তনের আবেদন এর জন্য শুধু প্রমোশনই যথেষ্ট।

• একবার Not-Promoted হয়েও পরবর্তিতে Promotion পেলে তখন আর কলেজ পরিবর্তনের আবেদন করতে বাধা থাকবে না।

কিভাবে স্টুডেন্ট আইডি খুলবেন জানতে ক্লিক করুন

আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel

Single Column Posts

করোনাভাইরাস কারণে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় এর ওয়েবসাইটে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ করা হয়। প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে...

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় এইচএসসি ভর্তি তথ্য ২০২০-২০২১ নোটিশ প্রকাশিত হয়েছে। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন এইচএসসি প্রোগ্রামে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়েছে। বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাউবি) অধীন ওপেন স্কুল...

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত স্টাডি সেন্টারের ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষা সময়সূচী প্রকাশ হয়েছে। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করা হয়। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০ সালের...

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বিবিএ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২০। বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ৪ বছর মেয়াদি বিবিএ BBA বাংলা মাধ্যম ভর্তি চলছে ২০২০ ব্যাচ। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০...

বাংলাদেশে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের এমএ ও এমএসএস মাস্টার্স পরীক্ষার রুটিন ২০২০। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিলিমিনারী মাস্টার্স ও মাস্টার্স ফাইনাল পরীক্ষার সময়সূচি ২০২০। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের মাস্টার্স...